মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৫ম পর্যায়

হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়

কুড়িগ্রাম জেলা কার্যালয়

ই-মেইল: msgskuri@gmail.com

 

মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৫ম পর্যায় শীর্ষক প্রকল্পের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি

 

“মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম” ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন একটি প্রকল্প। বর্তমানে প্রকল্পটির ৫ম পর্যায় চলমান। প্রাক-প্রাথমিক, গীতা শিক্ষা এবং বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্রের মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা প্রকল্পের প্রধান কাজ। টেকসই উন্নয়ন অভিষ্ট অর্জন, সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন, নারীর ক্ষতায়ন এবং ‘Vision-2021” বাস্তব রূপায়নে প্রকল্পটি কার্যকর ভূমিকা রাখছে। ১ম, ২য়, ৩য় এবং ৪র্থ পর্যায়ের সফল বাস্তবায়নের পর “মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৫ম পর্যায়” শীর্ষক প্রকল্পটি ২০১৭ সালের জুলাই মাস থেকে শুরু হয়েছে এবং ডিসেম্বর ২০২০ সালে শেষ হবে।

 

৫ম পর্যায় প্রকল্পের সারাদেশে মন্দির আঙ্গিনাকে ব্যবহার করে ৫৮০০ টি প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষাকেন্দ্রের মাধ্যমে ৫,২২,০০০ জন শিশুকে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষাদান করা হবে। কার্যক্রমের সকল শিশুকে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষাক্রম সমাপান্তে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির ব্যবস্থা করা হয় বিধায় প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির হ্রাস বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং সবার জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অর্জন নিশ্চিত করনের পথ প্রশস্ত হয়েছে। ২৫০টি বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্রের মাধ্যমে ১৮,৭৫০ জন বয়স্ক শিক্ষার্থীকে নিরক্ষর মুক্ত করে উন্নত জীবন যাপন সম্পর্কে সচেতন করা হবে।  ৪০০টি গীতা শিক্ষাকেন্দ্রের মাধ্যমে ৩৩,০০০ জন শিক্ষার্থীকে গীতা শিক্ষায় পারদর্শী করা হবে। ৬৪টি জেলা/আঞলিক কার্যালয়ের ৩২২ জন কর্মকর্তা/কর্মচারীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে এবং ৬৫৭৮ জন শিক্ষক/কনটিনজেন কর্মচারীর পার্ট-টাইম কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয়েছে-যা দারিদ্র বিমোচনে সহায়ক হচ্ছে। নিয়োজিত কর্মকর্তা/কর্মচারীদের ২০% ও শিক্ষকদের ৮০% এর উর্দ্ধে মহিলাদের মধ্য থেকে পূরন কর হয়েছে বিধায় প্রকল্পটি নারীর ক্ষতায়নে সুযোগ সৃষ্টি করেছে।

 

“মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম” শীর্ষক প্রকল্পের মাধ্যমে শিশু ও বয়স্ক শিক্ষার্থীদের অক্ষরজ্ঞান ও আধুনিক শিক্ষাদানের পাশাপাশি নৈতিকতা শিক্ষা ও ধর্মীয় চর্চার সুযোগ রয়েছে। ধর্মীয় চর্চা মানুষের আধ্যত্মিক চিন্তা চেতনার উন্মেষ ঘটায়। আধ্যাত্মিক চিন্তা আমাদের অন্তরে আদর্শ, নৈতিকতা, সততা, সহনশীলতা এবং মানবিক মূল্যবোধকে জাগ্রত করে। তাই “মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম” সমাজ থেকে সহিংসতা দূকরণে সাহয়ক শক্তি হিসেবে কাজ করছে। অধিকন্তু এ কার্যক্রম হিন্দু ধর্মীয় উপাসনালয়গুলোকে আরও প্রাণবন্ত করে তুলেছে। প্রকল্পটি ধর্মীয় সংহতি ও সম্প্রীতির ক্ষেত্রে একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ।

 

এক নজরে কুড়িগ্রাম জেলায় প্রকল্পের কার্যক্রম

প্রকল্পের নাম

মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৫ম পর্যায়

উদ্যোগী মন্ত্রণালয়

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়

বাস্তবায়নকারী সংস্থা

হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট

প্রকল্পের শুরু

জুলাই ২০১৭

বাস্তবায়নকাল

জুলাই ২০১৭ থেকে ডিসেম্বর ২০২০

প্রকল্পের প্রাক্কলিত ব্যয়

২,১৬,৫১.৯৭ লক্ষ টাকা

ব্যাপ্তি

৬৪টি জেলা

বাস্তবায়ন এলাকা

৬৪টি জেলার ৪৯২টি উপজেলা (সমগ্র বাংলাদেশ)

২০১৯ শিক্ষাবর্ষে কুড়িগ্রাম জেলায় মোট শিক্ষাকেন্দ্র

76টি

ক) প্রাক-প্রাথমিক

৬৭টি

খ) বয়স্ক

০৩টি

 

গ) গীতা শিক্ষাকেন্দ্র

০৬টি

১০

২০১৯শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীর লক্ষ্য মাত্র

২৪০০ জন

 

 

 

 

 

 

এক নজরে কুড়িগ্রাম জেলায় প্রকল্পের ৫ম পর্যায়ের কার্যক্রম

 

ক্রমিক

উপজেলা

শিক্ষাকেন্দ্র সংখ্যা

শিক্ষার্থীর সংখ্যা

মন্তব্য

প্রাক-প্রাথমিক

গীতা শিক্ষা

বয়স্ক

প্রাক-প্রাথমিক

গীতা শিক্ষা

বয়স্ক

কুড়িগ্রাম সদর

১৩টি

০১টি

-

৩৯০ জন

২৫ জন

-

 

উলিপুর

১৫টি

০১টি

০২টি

৪৫০ জন

২৫ জন

৫০ জন

 

চিলমারী

০৫টি

০১টি

-

৩০০ জন

৩০ জন

 

 

রাজারহাট

১৪টি

০১টি

০১টি

৪২০ জন

২৫ জন

২৫ জন

 

নাগেশ্বরী

০৮টি

০১টি

-

২৪০ জন

৩০ জন

-

 

ফুলবাড়ী

০৮টি

-

-

২৪০ জন

-

-

 

ভুরুঙ্গামারী

০৩টি

০১টি

-

৯০ জন

৩০ জন

-

 

রৌমারী

০১টি

-

-

৩০ জন

-

-

 

 

মোট

৬৭টি

০৬টি

০৩টি

২১৬০ জন

১৬৫ জন

৭৫ জন

 

 

কুড়িগ্রাম জেলা কার্যালয়ের শিক্ষাকেন্দ্র, শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীর তথ্য (২০১৯):

 

শিক্ষাকেন্দ্রের সংখ্যা

মোট শিক্ষকের সংখ্যা (৭৬ জন)

মোট শিক্ষার্থী সংখ্যা

২০১৯ শিক্ষাবর্ষের প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষাকেন্দ্রে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থী সংখ্যা

২০১৯ শিক্ষাবর্ষের গীতা শিক্ষাকেন্দ্রে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থী সংখ্যা

২০১৯ শিক্ষাবর্ষের বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্রে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থী সংখ্যা

 

প্রাক-প্রাথ:

গীতা

বয়স্ক

পুরুষ

মহিলা

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

৬৭টি

০৬টি

০৩টি

১২

জন

৬৪

জন

১১০৮ জন

১২৯২ জন

১০৪০ জন

১১২০ জন

৬৮

জন

৯৭

 জন

৭৫

জন

                           

 

 

কুড়িগ্রাম জেলায় ক্রমবর্ধমান শিক্ষাকেন্দ্রের সংখ্যা

 

ক্রমিক

পর্যায়

শিক্ষাবর্ষ

শিক্ষাকেন্দ্রের সংখ্যা

কুড়িগ্রাম জেলা

সারাদেশ

১ম পর্যায়

২০১৩-২০১৭

-

৬৩০-২৫২০টি

২য় পর্যায়

২০১৮-২০১০

-

২৮০৪টি

৩য় পর্যায়

২০১১-২০১৪

৬০টি

২৩৫২-৫২৫০টি

৪র্থ পর্যায়

২০১৫-২০১৭

৬৭টি

৫৭৫০টি

৫ম পর্যায়

২০১৮-২০২০

৭৬টি

৬৪৫০টি

 

 

প্রকল্পের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম পর্যায়ের কুড়িগ্রাম জেলায় প্রকল্পের শিক্ষা কার্যক্রম সংক্রান্ত তথ্যঃ

 

ক্রমিক

শিক্ষাবর্ষ

কেন্দ্র সংখ্যা

শিক্ষার্থীর সংখ্যা

গড় উপস্থিতি

২০১১

৬০

১৭৮৫ জন

৯৮%

২০১২

৬০

১৭৮৫ জন

৯৮%

২০১৩

৬০

১৭৮৫ জন

৯৮%

২০১৪

৬০

১৭৮৫ জন

৯৮%

২০১৫

৬৭

১৯৯৫ জন

৯৮%

২০১৬

৬৭

১৯৯৫ জন

৯৮%

২০১৭

৬৭

১৯৯৫ জন

৯৮%

২০১৮

৭৬

২২৫০ জন

৯৮%

২০১৯

৭৬

২৪০০ জন

চলমান

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter